মালদা

  • উচ্চ মাধ্যমিকে নবম মানিকচকের ছাত্রী ! কে এই কৃতি মেয়ে ?

    News Bazar24 : উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফলে যুগ্ম ভাবে রাজ্যে নবম স্থান দখল করলো মালদার মানিকচক শিক্ষা নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী সোমা সাহা।কলা বিভাগ থেকে তার প্রাপ্ত নম্বর ৪৮৭ ।এই সাফল্যে খুশি পরিবার সহ প্রতিবেশীরা। মা ইন্তিসা সাহা।দুই মেয়ের মধ্যে সোমা ছোট মেয়ে।সোমার জন্মের পর থেকে বাবা ও মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদের পর মানিকচক থানার মথুরাপুর অঞ্চলের ধরমুটোলা গ্রামে দাদুর বাড়িতে মাকে নিয়ে বসবাস তার।দাদু কালিপদ সাহা সামান্য একটি মুদি দোকানদার।সেই দোকানের ওপরই নির্ভর করে দাদুর বাড়িতেই বসবাস।এদিন টিভিতে নিজের নাম শুনতে পেয়ে অফালুত সোমা সহ পরিজনেরা।মা ইন্তিসা দেবী সহ প্রতিবেশীরা একে একে সোমার মুখ মিষ্টি করেন।বাংলা , ইংরেজি ,ইতিহাস ,দর্শন , ভূগোল ছিলো বিষয়। ৪৮৭ নম্বর পেয়ে রাজ্যে যুগ্মভাবে নবম হয়েছে সোমা।মানিকচক শিক্ষা নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। আরো একটু ভালো ফল হলে ভালো লাগতো বলে জানান কৃত ছাত্রী সোমা সাহা।তিনি বলেন,পড়াশোনাটা ওই ভাবেই করতাম যাতে মেধা তালিকায় নাম আসে।রাজ্যে নবম হয়ে খুশি।রাতেই বেশি করে পড়াশোনা করতাম।তিনটি টিউশন ছিল।সাথে বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা যথেষ্ট সহযোগিতা করতো।পরিবারের আর্থিক অবস্থা খারাপ।দাদুর একটি দোকানের ওপর নির্ভর করে গোটা পরিবার।আগামী পড়াশোনার জন্য যা খরচ প্রয়োজন সেটাই বাধা হবে আমার।আর্থিক সাহায্য পেলে আরো পড়াশোনা করে শীর্ষ স্থান দখলের চেষ্টা থাকবে। মেয়ের এই সাফল্যে বেজায় খুশি মা ইন্তিসা দেবী।তিনি জানান,মেয়ের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য যায় করতে হোক আমি করবো। দুই মেয়েই ছোটো থেকেই পড়াশোনায় খুব আগ্রহী।সামান্য সেলায়ের কাজ করে যা অর্থ উপার্জন করি মেয়েদের পড়াশোনায় যোগান দিতাম।যে মতো টিউশন শিক্ষক প্রয়োজন ছিলো তা যতটা পেরেছি করেছি।মেয়ের কিছু করে দেখানোর ইচ্ছেরই ফল এই রেজাল্ট।বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা অনেক সাহায্য করেছে।মেয়েকে বলেছি তোর যা নিয়ে পড়ার ইচ্ছে পড়।আমি যা করে হোক সব করবো ।

  • বাগানে লিচু পাড়ার সময় মালদায় দুষ্কৃতীদের ছোড়া বোমায় জখম ২

    News Bazar24: দুষ্কৃতিদের ছোড়া বোমার আঘাতে গুরুতর জখম হলেন দুই লিচু ব্যবসায়ি। রবিবার রাতে কালিয়াচক থানার আলিপুরের দালাল মোড় এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।গুরুতর জখম আবস্থায় ওই দুই ব্যাক্তি বর্তমানে মালদা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় এদিন তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় কালিয়াচক থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।ঘটনাস্থল থেকে দুটি তাজা বোমা উদ্ধার করে নিষ্কৃয় করে পুলিশ। ঘটনায় এদিন তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে জখম হয়েছেন রিয়াজউদ্দিন মমিন(৪০)বাড়ি কালিয়াচকের আলিপুর এক নম্বর পঞ্চায়েতের মারুয়াবাদ গ্রামে ও সফিকুল শেখ(৩৫)। বাড়ি কালিয়াচকের খাস চাঁদপুর গ্রামে। দুইজনেই পেশায় লিচু ব্যাবসায়ি। জানা গিয়েছে রবিবার রাতে দালাল মোড় বাজারে লিচু মজুত করে গোডাউনে। তারপর পাশে দোকানে চা খেতে যায়। সেই সময় হঠাৎ ইলেক্ট্রীক চলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে জনবহুল এলাকায় শুরু হয় ব্যাপক বোমাবাজি। আতঙ্কে এদিক ওদিক ছোটাছুটি শুরু করে সাধারণ মানুষ। বোমার মাঝে পড়ে জখম হয় দুই জন। প্রায় তিন থেকে চারটি বোমা ছোড়ার পর পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিরা। স্থানীয়রা জখম দুই জনকে উদ্ধার করে প্রথমে সিলামপুর গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে যায়। আবস্থার আশঙ্কাজনক থাকায় তাদের মালদা মেডিকেলে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় কালিয়াচক থানার পুলিশ। ঘটনাস্থ থেকে উদ্ধার করে দুটি তাজা বোমা। সেগুলি নিষ্কৃয় করে পুলিশ। এলাকায় মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। তবে কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

  • রবীন্দ্র নজরুল সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় মালদা শহরের সিঙ্গাতলার বাসন্তী আবাসনে বাসিন্দারা ।

    মালদা, ২৬ মেঃ জাকজমক ভাবে  রবীন্দ্র নজরুল  সাংস্কৃতিক সন্ধ্যাতে মেতে উঠলো মালদা শহরের সিঙ্গাতলার বাসন্তী আবাসনে বাসিন্দারা । আবাসনের বাসিন্দারা এই অনুষ্ঠান অংশগ্রহণ করে ।আবাসনের  সবচেয়ে  বয়জষ্ঠ মিরা প্রামাণিক  রবীন্দ্র ও নজরুল কে পুষ্প মাল্য দানের মধ্যে দিয়ে রবীন্দ্র নজরুল সন্ধ্যা অনুষ্ঠানের সুচনা হয় । আবাসনের বাসিন্দারা নাচ গান আবৃত্তি মাধ্যমে অনুষ্ঠান মাতিয়ে তুলেন।শিশু  শিল্পী দের মধ্যে  সঙ্গীত পরিবেশন করে  অনিশ , অর্পিতা ও দীশারী । নৃত্য পরিবেশন করে  অনুপ্রীতা , সঞ্চিতা  , মৌনিকা , সমৃদ্ধি  ,ও আনন্দী সেনগুপ্ত ।আবৃত্তি পরিবেশন করে  অগ্নিমিত্রা, আনন্দী, ও বিদীশা ।  সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মোহোর ব্যানার্জি ।  মালদা শহরের বিখ্যাত বাচিক শিল্পী রেশমি মজুমদার এর কন্ঠে ছড়া আবৃতি সকলকে আকৃষ্ট করে । সমগ্র অনুষ্ঠানটিতে সবকটি গান তবলায় সংগত করেন আবাসনের তবলচি ঋতবান মিশ্র। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শহরের বিশিষ্ট শিশু চিকিৎসা অভিজিৎ মিশ্র ।বাসন্তী  আবাসনের সম্পাদক  শান্তনু  রায় জানান  ," প্রতি  বছরই আমরা  আমাদের  আবাসনের বাসিন্দাদের  শিল্পী  সত্তা বজায়  রাখার জন্য  এ ধরনের  অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় । এই অনুষ্ঠানে  আবাসনের  শিল্পী দের পুরস্কৃত করা হয় ।"

  • মালদার গাজোলে লরি ও ছোটগাড়ির সংঘর্ষে মৃত্যু হল এক ব্যবসায়ীর।

    ২৬মে,মালদা : লরি ও ছোটগাড়ির সংঘর্ষে মৃত্যু হল এক চা পাতা ব্যবসায়ীর। শনিবার গভীর রাতে মালদার গাজোলের কদুবাড়ি মোড় এলাকায় দূর্ঘটনাটি ঘটে। মালদা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার সকালে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। ঘটনায়  শোকের ছায়া নেমে আসে পরিবারে। পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে ,মৃত ব্যবসায়ীর নাম অতস সরকার(৪৯)। বাড়ি চাঁচল থানার সুজাগঞ্জ এলাকায়। পেশায় তিনি চা পাতা ব্যবসায়ী ছিলেন। শনিবার শিলিগুড়ি থেকে চা পাতা কিনে বাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন।গভীর রাতে গাজোলের কদুবাড়ি মোড়ে বাস থেকে নামেন। সেখানে চাঁচলগামী একটি ছোট গাড়িতে করে বাড়ির উদ্দেশ্য রওনা দেয়। গাড়িটি কিছুটা এগাতেই রাজ্য সড়কে লড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাধে।গুরুতর জখম হয় অতস সরকার।  পুলিশ তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গাজোল গ্রামীন হাসপাতালে ভর্তি করে।শারীরিক আবস্থার অবনতি হতে থাকলে চিকিৎসকেরা তাকে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। চিকিৎসাধীন আবস্থায় রবিবার সকালে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। এদিকে গাজল থানার পুলিশ ঘাতক গাড়িটিকে আটক করলেও চালক লাতক।পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

  • আবার মালদায় ৭ লক্ষ টাকার জাল নোট উদ্বার।

    মালদা, ২৬ মেঃ জাল নোট উদ্বারে মালদা আবার শিরোনামে, তবে এবার কালিয়াচকে নয় মালদার মানিকচকে। এ ক্ষেত্রে কৃতিত্ব  মানিকচক থানা পুলিশের ।  মোট সাত লাখ টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার এক   পাচারকারী ।   ঘটনা মালদার  মানিকচক থানার এনায়েতপুর এলাকার ।   পুলিশ সূত্রে  জানা যায় রবিবার  সকালে এনায়েতপুর এলাকা থেকে গোপন সূত্রের খবর অনুযায়ী  মানিকচক থানার ওসি  দেবব্রত চক্রবর্তীর  নেতৃত্ব পুলিশ বাহিনী  একটি মটরবাইকে  করে যাবার সময়  দুই জন ব্যক্তিকে   ধরার চেষ্টা করে  । ঘটনায় এক জন পালিয়ে গেলেও দিলবার হোসেন(২৫)  নামে  ব্যক্তিকে আটক করে মানিকচক থানার পুলিশ ।  আটক ব্যক্তি কে তল্লাসী চালালে তার কাছ থেকে  ৭ লক্ষ  টাকার জাল নোট উদ্ধার হয় ।উদ্ধার হওয়া জাল নোট গুলি সমস্ত  ২ হাজার টাকার ।   ধৃত দিলবার হোসেন বাড়ি মালদার কালিয়াচক থানা চরিঅনন্ত পুর এলাকার পিরপুর গ্রামে ।  পুলিশ সূত্রে আরো জানা যায়  বাংলাদেশ  দেশ থেকে জাল নোট গুলি মানিকচকের গঙ্গানদী পার করে ঝাড়খন্ড রাজ্যে পাচার করার উদ্দেশ্য ছিল পাচারকারীদের ।  তার আগেই মানিকচক পুলিশ সব বানচাল করে দেয় ।  মানিকচক থানার পুলিশ ধৃত দিলবার হোসেন কে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাছে ।  পাশাপাশি ঘটনায়  জড়িত  জাল নোট চক্রের হদিশ পাবার জন্য  তদন্ত  শুরু করছে পুলিশ। আগামী কাল ধৃত কে মালদা জেলা আদালতে পেশ করবে পুলিশ।

  • মালদার তৃনমূল সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন অপসারিত নূতন সভানেত্রী মৌসম বেনজির নুর।

    মালদা, ২৫ মেঃ আজ কলকাতায় কালীঘাটে তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের বাসভবনে সাম্প্রতিক লোকসভা নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে  পরাজয়ের কারণ নিয়ে পর্যালোচনার জন্য দলের সাংসদ থেকে শুরু করে বিধায়ক দলীয় প্রার্থী,  এবং জেলার নেতাদের  নিয়ে এক সভা করেন সেখানে বেশ কয়েকটি জেলায় সাংগঠনিক পদে পরিবর্তন করা হয়েছে ।  তার মধ্যে মালদা জেলার বর্তমান তৃনমূল সভাপতি  মোয়াজ্জেম হোসেন কে অপসারিত করা হয়েছে। মালদা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি পদে অভিষিক্ত করা হয়েছে প্রাক্তন সাংসদ এবং মালদা উত্তর কেন্দ্রের পরাজিত দলীয় প্রার্থী  মৌসম বেনজির নুরকে।

  • মালদা শহরের সুকান্তপল্লী এলাকায় বেআইনি মদের ঠেকে ভাঙচুর স্থানীয় বাসিন্দাদের

    মালদা, ২৫ মেঃ বেআইনি মদের ঠেকে ভাঙচুর চালানোর ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। শনিবার দুপুরে ইংরেজবাজার শহরের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের সুকান্তপল্লী এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। ঘটনাস্থলে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, এদিন দুপুরে শহরের সুকান্তপল্লী এলাকায় চার যুবক বেআইনি ভাবে মাদক বিক্রি করতে আসে। স্থানীয় বাসিন্দারা হাতেনাতে ধরে তাদের ব্যাপক মারধোর করে। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। অভিযুক্ত চারজনকে একটি ঘরে বন্দি করে রাখে পুলিশকে খবর দেয় বাসিন্দারা। সেই সময় চার যুবককে সেখান থেকে পালিয়ে যেতে সাহায্য করে স্থানীয় এক ব্যাক্তি। ঘটনায় উত্তেজিত জনতা ওই এলাকায় বেআইনি চারটি মদের ঠেকে ভাঙচুর চালায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

  • তড়িদাহত হয়ে গবাদিপশুর মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা পুরাতন মালদা পৌরসভার মহানন্দা কলোনিতে

    মালদা, ২৫ মেঃ তড়ি দাহত হয়ে গবাদিপশুর মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। ঘটনাস্থলে বিদ্যুৎ কর্মীরা পৌঁছালে তাদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা বলে অভিযোগ। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটে পুরাতন মালদা পৌরসভার ১৮  নম্বর ওয়ার্ডের মহানন্দা কলোনি এলাকায়। উল্লেখ্য আজ সকালে ওই এলাকায় একটি ইলেকট্রিক পোলের সামনে এক গবাদিপশুকে মৃত অবস্থায় দেখতে  পান স্থানীয়রা। খবর চাউর হতেই শয়ে শয়ে স্থানীয়রা ছুটে আসেন। এই ঘটনায় পুরাতন মালদা পৌরসভা এবং বিদ্যুৎ দপ্তর এর গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়রা। খবর দেওয়া হয় বিদ্যুৎ দপ্তরে। অভিযোগ  দুই ঘণ্টারও বেশি সময় পর ঘটনাস্থলে পৌঁছান বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্মীরা। বিদ্যুৎ কর্মীদের ঘিরে চরম বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ পৌরসভা এবং বিদ্যুৎ দপ্তর এর কর্মীদের গাফিলতির কারণে আজ এই ঘটনা ঘটলো। সকাল এর পরিবর্তে একটু বেলা করে এই ঘটনা ঘটলে গবাদিপশুর জায়গায় হয়তো কোন মানুষের মৃত্যু হতে পারত বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

  • দক্ষিণ মালদায় কোন ব্লকে কে কেমন ভোট পেলো! দেখে নিন এক নজরে

    News Bazar24:দক্ষিণ মালদা নির্বাচনী ক্ষেত্রে বিজেপি ও কংগ্রেসের ঢেকি লড়াই।শেষ পর্যন্ত কংগ্রেসের জয়। তাও আবার নাম মাত্র ভোটের ব্যাবধানে। আর সেই জন্যই সবার মধ্যে কৌতূহল কে কোথায় কেমন ভোট পেলো। আর এই কৌতূহল চেপে রাখা ভালো নয়। বিশেষ করে হার্ট রুগীদের জন্য। তাই আমরা আপনাদের পাশে আছি । দেখে নিন কে কোথায় মনে কোন ব্লকে কেমন ভোট পেলেন…..

  • গেরুয়া ঝড়ে ধূলিসাৎ হয়ে গেল মালদার ২টি লোকসভা আসনে তৃণমূলের জয়ের আশা।

    মালদা, ২৪ শে মেঃ গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়ে ব্যাপক গেরুয়া ঝড়ে থমকে গেল তৃণমূলের মিথ।  উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলার ন্যায় মালদা জেলার দুটি লোকসভা আসনের একটিতেও ঘাস ফুল ফোটাতে সক্ষম হল না তৃনমূল। মালদার দুটি লোকসভা কেন্দ্র উত্তর মালদা ও মালদা দক্ষিনএ  তৃণমূল কংগ্রেস  প্রার্থীরা হারলেন  । উত্তর মালদা লোকসভা কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মৌসম নুর কে ৮২৪৯৮ ভোটে হারিয়ে জয়ী হলেন বিজেপি প্রার্থী খগেন মুর্মু। বিজেপি প্রার্থী খগেন পেয়েছেন ৫০৯৫২৪টি ভোট , তৃণমূল প্রার্থী মৌসম নূর পেয়েছেন ৪২৫২২৬ টি ভোট এবং অপর প্রার্থী কংগ্রেসের ঈশা খান পেয়েছেন ৩০৫২৭০টি ভোট। জয়ী হবার পর বিজেপি প্রার্থী খগেন মুর্মু  জানান, গোটা ভারতবর্ষে যে মোদী হাওয়া উঠেছে তারই ফলশ্রুতি স্বরুপ উত্তর মালদায় মোদির জয়। এখানকার মানুষ কংগ্রেস  ও  তৃণমূলের উপর  বিতশ্রদ্ধ। বাংলার মানুষের উন্নয়ন  একমাত্র বিজেপি করতে পারে। তাই মালদার মানুষ আমাকে জয়ী করেছে। আগামী দিনে যাতে মালদার জ্বলন্ত সমস্যা গুলোকে সমাধান করা যায় তার জন্য আমি সংসদে লড়াই করব।  অন্যদিকে এই বিপুল ভোটে পরাজয়ের পর তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মৌসম নুর জানান, শুধু মালদা নয় গোটা  রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের খারাপ ফলাফল হয়েছে। আমাদের আশানুরূপ ফলাফল হয়নি।  এখানে ধর্মের ভিত্তিতে ভোট হয়েছে এবনফ আদিবাসীদের একটা বিরাট অংশের মানুষ আমদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে তবে মানুষের রায় কে আমরা মেনে নিচ্ছি। আগামীতে তৃণমূল কংগ্রেসের খারাপ ফলাফল নিয়ে আমরা  আরও  আলোচনা করব এবং কেন এই ফলাফল সেটা খতিয়ে দেখব। অন্যদিকে দক্ষিণ মালদা লোকসভা কেন্দ্রে  শেষ হাসি হাসলেন কংগ্রেসের  প্রার্থী এবং গনি পরিবারের প্রবীন সদস্য আবু হাসেম খান চৌধুরী। সারাদিন ধরে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর বিজেপি প্রার্থী শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরীকে হারিয়ে জয়ী হলেন কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী। তার জয়ের ব্যবধান ৯৫৩৭ । এই নিয়ে পরপর  চার বার  এমপি হলেন আবু হাসেম খান চৌধুরী। এখানে তৃনমূল প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন ৩ নম্বরে নেমে গেলেন। এক কথায় বলা যায় সংখ্যালঘু  অধ্যুষিত এলাকায় বিজেপি যেভাবে লড়াই চালাল তা আগামী দিনে শাষক দলকে চিন্তায় রাখবে। এই কেন্দ্রে  আবু হাসেম খান চৌধুরী পেয়েছেন ৪৪৩৫৪০টি ভোট। বিজেপি প্রার্থী  শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী পেয়েছেন ৪৩৪০০৩টি ভোট  এবং তৃণমূল কংগ্রেসের মোয়াজ্জেম হোসেন পেয়েছেন ৩৫০৩৭৪টি ভোট। জেতার পর আবু হাসেম খান চৌধুরী বলেছেন “এই জয় গনি খানের জয়। গনি  খানের প্রতি মালদার মানুষের যে এখনও শ্রদ্বা আছে এই ভোটে তা আর একবার প্রমানিত হল। সন্ত্রাস অপ্রচার সত্তেও এই জয় মানুষের জয়। (বি দঃ গতকাল আমাদের খবরে দক্ষিন মালদা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীকে জয়ী দেখানো হয়েছিল। সংবাদ সংস্থার খবরে ত্রুটির জন্য আমাদের এই খবর ভুলবশত পরিবেশন করা হয়েছিল। এজন্য আমরা আমাদের পাঠকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী)