মালদা

  • মালদা জেলাতেও খুশির ঈদে মেতে উঠল মুসলিম সম্প্রদায়ের ৮থেকে ৮০ সকলেই

    মালদা ,৫ জুন :সারা রাজ্যের সাথে মালদা জেলাতেও  পালিত হল আজ খুশির ঈদ।এদিন সকালে মালদা শহরের  সুভাষ পল্লি ইদ্গাহ ময়দানে নামাজ পড়তে হাজির হন কয়েকশো মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ সেখানে শিশু কিশোর সহ যুবক সহ প্রবীন ব্যাক্তিরা জমায়েত হন। নামাজ শেষে  একে অপরের সঙ্গে আলিঙ্গন করে সৌজন্য বিনিময় করেন। পাশাপাশি বক্কা টুলি মসজিদে নামাজ পড়তে হাজির হন এলাকার কয়েকশো মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। সেখানে এদিন উপস্থিত ছিলেন  জেলার প্রাক্তন মন্ত্রী তথা জেলা পরিষদের মেন্টর কৃষ্ণেন্দু নারায়ন চৌধুরী এছাড়াও ছিলেন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার সকল মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।  

  • রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম ঈদগাহ ময়দানে নামাজের পর মিলে মিষে একাকার ৮ থেকে ৮০! কোথায় জানেন ?

    News Bazar24: একমাসের রমজান শেষে আজ খুশির ঈদ।রাজ্যের দ্বিতীয় তথা উত্তরবঙ্গের বৃহত্তম ঈদগাহ ময়দান মালদার কালিয়াচকের নোয়মৌজা ঈদগাহ।এদিন সকাল সকাল ঈদের নামাজ পড়তে এই ঈদগাহ ময়দানে হাজির হন এলাকার লক্ষাধিক মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।একসাথে এত মানুষের নামাজ পাঠের এমন দৃশ্য উত্তরবঙ্গের আর কোথাও দেখা যায়না। ৮ থেকে ৮০ সকল বয়সের নামাজ পাঠের পর একে অপরের সঙ্গে আলিঙ্গন করে সৌজন্য বিনিময় করেন।এতো বড়ো জমায়েতকে মাথায় রেখে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করা নজরদারি ব্যবস্থা করা হয়।এদিন জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীন)দীপক সরকার ও ডিএসপি বিপুল মজুমদার নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়।এই নামাজ পাঠ চলা কালীন ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে যান চলাচল প্রায় ঘন্টা খানেক অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে।শান্তিপূর্ণ ভাবে এবছরও নামাজপাঠ শেষ করতে সক্ষম পুলিশ প্রশাসন। পাশাপাশি,মালদা শহরের হায়দারপুর মুসলিম মহিলা জনকল্যাণ কমিটির উদ্যোগে প্রতিবারের মতো হায়দারপুর ঈদগাহে নামাজ পাঠ করেন এলাকার প্রায় কয়েক হাজার মুসলিম সম্প্রদায়ের মহিলারা।বিগত ১৮ বছর ধরে মুসলিম মহিলারা ঈদের নামাজ পাঠ করেন।

  • মালদার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় বিএসএফের গুলিতে মৃত্যু হল বাংলাদেশি গরু পাচারকারীর।

    মালদা,  ৪ জুন : গরু পাচার করতে এসে ভারতীয় সীমান্ত বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হল এক বাংলাদেশি গরু পাচারকারীর। ইংরেজবাজার থানার কেষ্টপুর ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় শুক্রবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে। ভারতীয় সীমান্ত বাহিনীর জওয়ানেরা দেহটি উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। সীমান্ত বাহিনী ও পুলিশ  সুত্রে জানা গিয়েছে মৃতের নাম জাহেরুল শেখ। বাবা মিনা শেখ। বাড়ি বাংলাদেশের ভোলাহাট থানার হোসেন ভিটাম ভুটানি মোড়ে। জানা গিয়েছে  মঙ্গলবার ভোরে কেষ্টপুর বিওপি এলাকায় ২৬ নম্বর গেটের কাছে পহাড়া দিচ্ছিল ৪৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের জওয়ানেরা। সেই সময় প্রায় ২০ থেকে ৩০ জনের একটি পাচারকারীর দল গরু পাচারের চেষ্টা করে। দেখে ফেলায় বাধা দেয় কর্মরত জওয়ানেরা।পাচারকারীদের চত্রভঙ্গ করতে গুলি ছোড়ে।  সেই সময় এক পাচারকারীর গুলি লাগে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার। বিএসএফ কর্তারা মঙ্গলবার সকালে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

  • পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মালদা শহরে যুব তৃনমূল কংগ্রেসের বিক্ষোভ মিছিল।

    মালদা,৪ জুন : পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে যুব তৃনমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছিল। মঙ্গলবার দুপুরে নেতাজি মোড় থেকে মিছিল শুরু হয়। মালদা শহর পরিক্রমা করে পোস্ট অফিস মোড়ে মিছিল শেষ হয়। জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের উদ্যেগে এই মিছিলে পা মেলান মালদা জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি অম্লান ভাদুড়ি। বিধায়ক তথা ইংরেজবাজার পৌরসভার পৌর প্রধান নিহার রঞ্জন ঘোষ, ইংরেজবাজার পৌরসভার উপপৌর প্রধান দুলাল সরকার, প্রাক্তন মন্ত্রী সাবিত্রী মিত্র সহ অন্যান্য তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা কর্মীরা।মালদা জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি অম্লান ভাদুড়ী জানিয়েছেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে সারা রাজ্যের সাথে মালদা জেলাতেও পেট্রো পণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা। মঙ্গলবার দুপুরে মালদা শহরের নেতাজি মোড় থেকে মিছিল শুরু হয়। সারা শহর পরিক্রমা করে মিছিল শেষে হয় মালদা শহরের পোস্ট অফিস মোড়ে।দলীয় ঝান্ডা হাতে নিয়ে মিছিলে পা মেলান কর্মী-সমর্থকরা।

  • কালিয়াচকের গোলাপগঞ্জ পঞ্চায়েতের খড়িবোনা গ্রামে ডাইরিয়ার প্রকোপ

    মালদা,  ৪ জুন : ডাইরিয়াই আক্রান্ত হলেন একই  গ্রামের প্রায় ৫০থেকে ৬০ জন বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে সব বয়সের বাসিন্দা রয়েছে।  উক্ত ঘটনায় সোমবার দুপুর  থেকে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে কালিয়াচকের গোলাপগঞ্জ পঞ্চায়েতের খড়িবোনা গ্রামে। অসুস্থদের মধ্যে আধিকাশ স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন। আশঙ্কাজনক আবস্থায় প্রায় ৯ জনকে মালদা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। মালদা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে জান্নাতুল্লা হোসেন, সাকিনা খাতুন , মোজ্জাবেল হক, মোতাইজা খাতুন সহ প্রায় ৯ জন। তবে কি কারণে এলাকায় এমন ঘটনা তা জানাতে পারছেনা স্থানীয় বাসিন্দারা।

  • পুরাতন মালদা শহর কমিটি বিজেপির পক্ষ থেকে বিজয় মিছিল

    মালদা,  ৪ জুন : পুরাতন মালদা শহর নগর মন্ডল বিজেপির পক্ষ থেকে মঙ্গলবার সকালে অনুষ্ঠিত হলো এক বিজয় মিছিল। উত্তর মালদা লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী খগেন মুর্মুর বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভকে সামনে রেখে এই বিজয় মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল। জানা যায় এদিন সদরঘাট থেকে এই বিজয় মিছিল বের হয়। গোটা সদরঘাট হয়ে বুলবুলচন্ডী, ওল্ড মালদা রোড হয়ে নবাবগঞ্জে এসে শেষ হয় এই বিজয় মিছিল। কয়েকশো দলীয় কর্মী এই বিজয় মিছিলে পা মেলান। বিজয় মিছিলে নেতৃত্ব দেন পুরাতন মালদা শহর নগর মন্ডল বিজেপির সভাপতি চন্দন দে। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা গোপাল সাহা সদ্য তৃণমূল থেকে আসা শ্রমিক নেতা পুতুল সরকার সহ অন্যান্যরা।

  • দীর্ঘ একমাসের কৃচ্ছসাধনের পর আগামীকাল মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ মাতবেন খুশীর ইদে

    মালদা,  ৪ জুন : আর একটা দিন পেরোলেইগোটা দেশের সাথে মালদা জেলার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ মেতে উঠবেন  খুশির ইদে। দীর্ঘ একমাসের কৃচ্ছসাধনের পর আনন্দে মাতবেন  মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ৷ এই জেলার ইতিহাসে দেখা গেছে , শুধু মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ৷রাই নয়, এখানে তাদের সঙ্গে মেতে ওঠে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরাও৷ ইদ বললে চোখের সামনে লোভনীয় লাচ্ছা, সিমুই যেমন  ভেসে ওঠে, তেমনই নাক খুঁজে বেড়ায় আতরের মিষ্টি সুগন্ধ৷ খস, গুলাব, জেসমিন, হরেক আতর সহজলভ্য বছরের ঠিক এই সময়ই৷ বিশেষত মালদা শহরের বিভিন্ন বাজারে এই সময় জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে এসে পসরা সাজান বিক্রেতারা৷ কিন্তু সেই আতর কিংবা লাচ্ছা বিক্রেতাদের এখন বড়োই দুর্দিন৷ কারণ, বাজার এখন শহরের সঙ্গে সঙ্গে ছড়িয়েছে গ্রামেও৷              আজ মালদা শহরের চিত্তরঞ্জন পৌরবাজারের লাচ্ছা ও আতর বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিজেদের ব্যবসায় তাঁরা প্রত্যেকেই গ্রামের ক্রেতাদের উপর বেশি নির্ভরশীল৷ কিন্তু এবছর গ্রাম থেকে শহরে আসা ক্রেতার সংখ্যা অনেকটাই কমে গেছে৷ তাঁরা সকলেই জানাচ্ছেন, এখন গ্রাম থেকে গ্রামান্তরেও ইদের জমজমাট বাজার বসে যাচ্ছে৷ সেই সব বাজারে বিভিন্ন ধরনের লাচ্ছা, সিমুই থেকে শুরু করে নানাবিধ আতর, সবই পাওয়া যাচ্ছে৷ দামও মোটামুটি একই৷ এবছর শহরের বাজারে বিভিন্ন ধরনের লাচ্ছার দাম ১২০ থেকে ২২০ টাকা৷ একই দামে একই লাচ্ছা পাওয়া যাচ্ছে গ্রামেও৷ ফলে গ্রামের মানুষজন এখন আর খুব একটা শহরে আসছেন না৷             এদিকে গত ১৫ থেকে ২৫ বছর ধরে মানিকচকের আতর বিক্রেতারা শহরে নিজেদের আতরের পসরা নিয়ে আসেন৷ এবারও তাঁদের দুজন চিত্তরঞ্জন পৌরবাজারে নিজেদের সুগন্ধের সম্ভার নিয়ে এসেছেন৷ কিন্তু এবার তাঁদের ব্যবসাও বিশেষ জমেনি৷ কারণটা একই৷ গ্রামেই চলে গেছে বাজার৷ তবুও তাঁরা আশাবাদী, আগামী দুদিনে হয়তো পরিস্থিতির বদল হতে পারে৷ ইদের শহরে উঠে আসতে পারে গ্রাম৷

  • লোকনাথ নাট্য সংস্থার উদ্যোগে লোকনাথ ব্রহ্মচারীর ১২৯ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে পূজা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

    মালদা,৩জুন: সারা রাজ্যের ন্যায় মালদা জেলাতেও লোকনাথ ব্রহ্মচারী  বাবার ১২৯ তম তিরোধান দিবস মহাসমারোহে পালিত হল। এই উপলক্ষে ঝলঝলিয়া এলাকার কাজী আজাহারউদ্দিন পৌরবাজারে লোকনাথ নাট্য সংস্থার উদ্যোগে ১২৯ তম বাবা লোকনাথের তিরোধান উৎসব পালন করা হয়। সোমবার মালদা শহরের ঝলঝলিয়া এলাকার  কাজী আজাহারউদ্দিন পৌরবাজারে নাট্য সংস্থার নিজস্ব মন্দিরে ঢাক কাসর বাজিয়ে  বাবা লোকনাথ পুজোর আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, লোকনাথ নাট্য সংস্থার সভাপতি উজ্জল সাহা, সংস্থার সক্রিয় সদস্য শংকর মুখার্জি, মনি সাহা সহ অন্যান্য সদস্যরা। এদিন ফিতে কেটে পূজোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সংস্থার সভাপতি উজ্জল সাহা। ঢাক কাসর বাজিয়ে মহাসমারোহে লোকনাথ পুজোর আয়োজন করা হয় এদিন। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন প্রান্তে বিভিন্ন সংস্থার উদ্যোগে আয়োজন করা হয় লোকনাথ পূজার।  সংস্থার সভাপতি উজ্জল সাহা জানিয়েছেন,১২৯ তম বাবা লোকনাথের তিরোধান উৎসব পালন করা হয় সংস্থার পক্ষ থেকে। গত ৯ বছর ধরে নিয়ম নিষ্ঠার সাথে তারা এই লোকনাথ পুজোর আয়োজন করে আসছেন।  আগামী দিনেও সংস্থার উদ্যোগে এই পুজো করবেন।

  • পৈতৃক সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৬.

    মালদা, ৩রা জুনঃ  পৈতৃক সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে দুই পরিবারের বিবাদের জেরে জখম হল উভয় পক্ষের তিন জন। গুরুতর জখম আবস্থায় এক জন মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাকি দুই আহতের চিকিৎসা চলছে স্থানীয় হাসপাতালে।ঘটনাটি ঘটেছে মালদার কালিয়াচক থানার মির্জাপুর গ্রামে।কালিয়াচক থানায় উভয় পক্ষ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। পরিবার সুত্রে জানাগেছে, আহতদের মধ্যে এক পক্ষের এক জনের নাম শেখ আমিরুদ্দিন।অপর পক্ষের দুই জন জখম।তাদের নাম শেখ মুখতার ও শেখ এখতার।পরিবার সূত্রে জানাগেছে মির্জাপুর গ্রামের বাসিন্দা মহম্মদ আইনূল হকেরা তিন ভাই। তাদের মোট চার কাঠা বসত জমি রয়েছে। সেই জমির নিজের ভাগ আইনূল বাবু তার ছেলে ও ভাইপোর কাছে বিক্রি করে।কিন্তু অইনূলের ছেলে আমিরুদ্দিকে জমির দখল দিচ্ছিলনা ভাইপো। এই নিয়ে রবিবার দুই পক্ষের বিবাদ হয়।বাঁশ লাঠি নিয়ে সংঘর্ষ বাধলে দুই পক্ষের তিন জন গুরুতর জখম হয়।ঘটনায় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।ঘটনায় দুই পক্ষই কালিয়াচক থানায় একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

  • অপরিনত আম কে পাকানোর জন্য মেশানো হচ্ছে কার্বাইড ও অন্যান্য রাসায়নিক পদার্থ।

    মালদা, ৩রা জুনঃ মুর্শিদাবাদের ন্যায়  মালদা জেলাও  আমের জন্য জগৎবিখ্যাত। ঊদ্যান পালন দফতরের উদ্যোগে এবছরও  মালদা জেলার আম ইংল্যান্ডে ছাড়াও পাড়ি দিচ্ছে  ইউরোপ ও দক্ষিন পশ্চিম এশিয়ার সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডে  ।  গত বছর মালদার আম গিয়েছিল ইংল্যান্ডে। প্রতিবছর এই  আমের মরসুমে দেশি এবং বিদেশি পর্যটকরা মালদায় আসেন জেলার জগৎবিখ্যাত ল্যাংড়া , গোপালভোগ ও খীরসাপাতি  সহ বিভিন্ন প্রজাতির আমের স্বাদ নিতে।  কিন্তু কার্বাইড মিশিয়ে আম পাকিয়ে বাজারজাত করার অভিযোগ উঠেছে একশ্রেনির  ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে । কিন্তু সেই কার্বাইড মেশানো আম অজান্তে কিনে ফেলেছেন সাধারণ ক্রেতারা। যার ফলে শারীরিক ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে বলে মনে করছেন আম রসিক মানুষেরা। পুরসভা ও প্রশাসন এই বিষয় তদারকি চালাচ্ছে না কেন তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে । মালদার এক আম বিক্রেতার কথায়, প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকতে গেলে কার্বাইড মিশিয়ে পাকানো ছাড়া কোন উপায় নেই । যেহেতু এখন রমজান মাস চলছে। তাতেই বিভিন্ন ফল সহ আমের চাহিদা ব্যাপক রয়েছে। সেই চাহিদা মিটাতে কার্বাইড মেশানো পাকা আম একাংশ বিক্রেতারা বাজারে বিক্রি করছে। এই বিষয়ে ব্যবসায়ী উজ্জল সাহা জানিয়েছেন, আমে যাতে কার্বাইড ব্যবহার না করা হয় তা নিয়ে শহরের ব্যবসায়ীদের সচেতন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে আমরা সেই প্রক্রিয়া শুরু করেছি।