মালদা

  • বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মালদা পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ সাংসদ খগেন মুর্মু।

    মালদা, ১৩ই জুনঃ বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি নিয়ে মালদা পুলিশ সুপার আলোক রাজোরিয়ার সাথে দেখা করলেন বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। সঙ্গে ছিলেন জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্রও। উল্লেখ্য দুই দিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর বুধবার ইংরেজ বাজারের হীরা কলোনি এলাকা থেকে এক বিজেপি কর্মীর ঝলসানো মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনার পর মালদা জেলা বিজেপি নেতৃত্ব এর পক্ষ থেকে তৃণমূলের দিকে অভিযোগ করা হয়। এই মর্মে মৃতের পরিবার এবং সংগঠনের পক্ষ থেকে ইংরেজ বাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার 48 ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও দোষীদের গ্রেপ্তার করতে না পারায় এদিন পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করেন উত্তর মালদা লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ এবং জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র। এই বিষয়ে উত্তর মালদা লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ খগেন মুর্মু জানান, গোটা রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছে। দুই দিন নিখোঁজ থাকার পর মালদায় বিজেপি কর্মীকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। দোষীরা এখনো অধরা। দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি নিয়ে তাই আজকে পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হয়েছেন। অন্যদিকে বিজেপির এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন মালদা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারম্যান ডাক্তার  মোয়াজ্জেম হোসেন। তিনি দাবি করেন নিহত ব্যক্তি বিজেপি কর্মী কিনা সেটা আগে প্রমাণ হোক। এই ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা যুক্ত নয় এই অভিযোগ ভিত্তিহীন। এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত হোক এবং দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হোক এমনটাই জানান তিনি।

  • বোমার আঘাতে আহত সেচ কর্মী মোহাম্মদ আলম শেখের মৃত্যু হলো । শোকের ছায়া বাঙ্গীটোলা তে ।

    সওলিনা খাতুন :মানিকচকে দুষ্কৃতীদের ছোড়া বোমার আঘাতে আহত সেচ কর্মী সেচকর্মী মোহাম্মদ আলম শেখের মৃত্যু হলো । বুধবার সকাল ১০:30 টা নাগাদ মৃত্যু হল আহত সেচকর্মী মোহাম্মদ আলম শেখের। এদিন মহম্মদ আলম বাড়িতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত স্থানীয় বাঙ্গিটোলা গ্রামীন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আলম কে নিয়ে যাওয়া হয় । সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয় । আলমের খবর জানাজানি হতেই শোকে মুহ্যমান হয়ে পরে গোটা কালিয়াচক দুই নং ব্লকে র বাঙ্গীটোলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার সাধারণ মানুষ । গত ১ জুন দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া বোমার আঘাতে গুরুতর আহত হন আলম সহ তিন জন । তাদের সকলকেই মালদা শহরের একটি বেসরকারি নার্সিং হোমে অপারেশন ও করা হয় আলমের । অবশেষে অনেকটা সুস্থ অবস্থায় হাসপাতাল থেকে ১০ জুন সোমবার আলমকে ছেড়ে দেয় । কিন্তু বুধবার ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন আলম । স্হানীয় বাঙ্গিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃত্যু হয় আলমের । তার মৃত্যুর খবরে কালিয়াচক 2 নম্বর ব্লকের বাঙ্গিটোলা গ্রাম পঞ্চায়েতের আকন্দবাড়িয়া গ্রামে নেমে আসে শোকের ছায়া । এদিন ময়নাতদন্তের জন্য দেহ নিয়ে যাওয়া হয় মালদা মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালে। তার মৃত্যুতে শোকের সাগরে কার্যত ভেসে গেল ওই পরিবার বলে আলমের ভাইপো সফিকুল সেখ জানান । সফিকুল জানান " নার্সিং হোম থেকে আলমকে দুই দিন আগে রিলিজ দেয়। ও খারাপ আছে জানলে আমারা কলকাতা নিয়ে যেতাম।এটা একটা আফশোস থেকে গেলো ।" এদিন মালদা মেডিকেল কলেজে সেচ দপ্তরের সমস্ত আধিকারিকরা আলমের মৃতদেহ কে সম্মান জানানোর জন্য উপস্থিত হয়। সেচ দপ্তরের আধিকারিকরা আলম এর মৃতদেহ মালদা মেডিকেল কলেজ থেকে সেচ দপ্তরের নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শেষ দপ্তরের সমস্ত আধিকারিকরা আলমের সম্মান প্রদান করেন । শোকে ভেঙে পরে সেচ দপ্তরের আধিকারিকরা । এদিকে মৃতদেহ বাঙ্গীটোলা নিয়ে গেলে আলমকে দেখতে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে ।

  • মহানন্দা নদীতে অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির মৃতদেহ।

    মালদা, ১২ জুন : আজ খুব ভোরে  মহানন্দা নদীতে ভেসে উঠলো অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির মৃতদেহ। বুধবার সকালে এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে মালদহের ইংরেজবাজার থানার বালুর চর এলাকায়। পরে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। জানা যায় এদিন সকালে কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা বালুচর এলাকায় মহানন্দা নদীর ঘাটে এক ব্যক্তির মৃতদেহ ভেসে থাকতে দেখে। খবর জানাজানি হতেই অন্যান্য বাসিন্দারা ছুটে আসেন। খবর দেওয়া হয় ইংলিশ বাজার থানায়। জানা যায়  প্রায় দুই ঘণ্টা পর ইংরেজবাজার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। তবে মৃত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি। খুন না আত্মহত্যা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। বাইট স্থানীয় বাসিন্দা

  • এক বিজেপি কর্মীর ঝলসানো মৃতদেহ উদ্ধার অভিযোগের তীর তৃনমূলের দিকে

    মালদা, ১২ জুন : এক বিজেপি কর্মীর ঝলসানো মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরল ইংরেজবাজার থানার সুস্থানি মোড় এলাকার  হীরা কলোনিতে  । অভিযোগের তীর তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য মর্গে পাঠায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে মৃতর নাম, অসিত সিংহ(৪৫)। তিনদিন ধরে নিখোঁজ ছিল সে। পরিবারের অভিযোগ, তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করে অ্যাসিড ঢেলে পুড়িয়ে দিয়েছে দুস্কৃতিরা। খবর পেয়ে বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে যান বিজেপির জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র। তিনি বলেন হীরা কলোনি এলাকায় জমিতে একটি খাসি ফসল খাচ্ছিল। জমির মালিক মারধোর দিয়ে ওই খাসির পা ভেঙে দেয় বলে অভিযোগ। এরপর স্থানীয় কয়েকজনের উস্কানিতে অসিত সিংহ এবং রঞ্জিত সিংহ দুজনে খাসির মাংস করে খেয়ে নে বলে অভিযোগ। এরপর খাসির মালিক গ্রামে একটি সালিশি ডাকে। সালিশিতে অসিত সিংহ এবং রঞ্জিত সিংহ কে 25 হাজার টাকা জরিমানা করে। রঞ্জিত সিংহ 10000 টাকা দিয়ে দেয়। বাকি 15000 টাকা দেয়নি বিজেপি কর্মী অসিত সিংহ। তাই তাকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র এবং মৃতের স্ত্রী আলো সিংহ। অন্যদিকে বিজেপির এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল। এ বিষয়ে মালদা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার জানান বিজেপি যে অভিযোগ করছে তা ভিত্তিহীন। এখানে রাজনৈতিক কোন রং নেই।

  • মালদা : দিনক্ষন ঠিক হলো মালদায় হকার উচ্ছেদের ! কবে থেকে জানতে পড়ুন বিস্তারিত

    মালদা, ১১ জুনঃ মালদা শহরের সুকান্ত মোড় থেকে রথবাড়ী মোড় দিয়ে গিয়েছে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক। এলাকায় ৪ লেন রয়েছে। কিন্তু বিশেষ করে রথবাড়ির কাছে ২টি লেন বর্তমানে কিছু ব্যবসায়ীদের দখলে। অভিযোগ ব্যাবসায়ীদের একাংশ রাস্তার উপরে মরসুমি ফল ও তরিতরকারির ব্যবসা করেন। আরও অভিযোগ এই ব্যাবসায়ীদের বেশিরভাগেরই বাজারের ভিতরে অথবা অন্য বাজারে পাকা দোকান ঘর রয়েছে। আজ ইংরেজবাজার পৌরসভার উদ্যোগে জাতীয় সড়ক কতৃপক্ষ, ট্রাফিক পুলিশ কতৃপক্ষ, ব্যবসায়ী সংগঠন ও বাসমালিক  সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে যৌথ বৈঠক হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মালদা সদর মহকুমা শাসক, পৌরসভার চেয়ারম্যান নীহার রঞ্জন ঘোষ, উপপৌরপ্রধান এবং কাউন্সিলারগন। সেখানে স্থির হয় আগামী ২০ জুন থেকে ঐ জায়গায় অর্থাৎ জাতীয় সড়কের ধারে রথবাড়ি মোড়ে কাউকে বসতে দেওয়া হবেনা।আগামীকাল থেকে তিনদিন ধরে মাইকে প্রচার করে আবেদন জানানো হবে যাতে কেউ আর ঐ জায়গায় না বসেন   এবং আগামীতে ঐ জায়গার সৌন্দযায়ন করা হবে। (বিস্তারিত পৌরপ্রধানের মুখ থেকে শুনুন)       

  • বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচার করার অপরাধে হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্বে।

    ৬ জুন,মালদা : বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচার কাজ করায় বিজেপি কর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠল তৃণমূল সমর্থক পরিবারের ওপর। কোমড়ে ধারালো অস্ত্রের কোপ লেগে গুরুতর জখম আবস্থায় এক বিজেপির যুব কর্মী বর্তমানে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বুধবার রাতে এমনই ঘটনা ঘটেছে মালদার হব্বিপুর থানার জাজল অঞ্চলের জিয়াকান্দর গ্রামে।ঘটনায় আক্রান্তের পরিবারের তরফে হব্বিপুর থানায় অভিযোগ জানালে তদন্তে নামে পুলিশ। পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, জখম ব্যক্তির নাম বিদ্যাসাগর চৌধুরি(২৬)। জাজল গ্রাম পঞ্চায়েতের জিয়া কান্দর গ্রামের বাসিন্দা। পরিবার সূত্রে জানাগেছে , বিদ্যাসাগর এলাকায় বিজেপি কর্মী হিসাবে পরিচিত। গত পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকেই এলাকায় বিজেপির  অংশ গ্রহন করে আসছেন তিনি। সেই সময় থেকে স্থানীয় তৃণমূল কর্মী জোগেশ চৌধুরি ও তার ছেলে ঋতুরাজ চৌধুরি হুমকি দিয়ে আসছিলো বিদ্যাসাগরকে । বুধবার রাতে সাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিল বিদ্যাসাগর। সেই সময় জোগেশ ও তার ছেলে ধারালো অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে তার উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ।ব্যাপক মারধোর করার পর কোমড়ে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারে। খবর পেয়ে দাদাকে বাঁচাতে ছুটে আসে ভাই মানু চৌধুরি। তাকেও অভিযুক্তরা মারধোর করে বলে অভিযোগ।পরে স্থানীয়রা দুই জনকে উদ্ধার করে বুলবুলচন্ডী গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়। আঘাত গুরুতর থাকায় বিদ্যাসাগরকে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। এদিকে আক্রান্তের পরিবারের পক্ষ থেকে হব্বিপুর থানায় অভিযোগ জানালে তদন্তে নামে পুলিশ।

  • জেল সুপারের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভে মৃত বিচারাধীন বন্দীর পরিবার এবং গ্রামবাসীরা।

    মালদা, ৬ই জুনঃ জেল সুপারের শাস্তির দাবিতে মালদা জেলা সংশোধনাগারের সামনে বিক্ষোভ দেখালো  মৃত বিচারাধীন বন্দীর পরিবার এবং  গ্রামবাসীরা। বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনায় চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মালদা শহরের পুলিশ লাইন এলাকায়। পরে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উল্লেখ্য বুধবার দুপুরে মালদা জেলা সংশোধনাগারের মধ্যে বিচারাধীন এক বন্দির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।  সংশোধনাগারের নির্মীয়মাণ রান্না ঘর থেকে জেল পুলিশ কর্মীরা উদ্ধার করে রাজু মন্ডল নামে  বিচারাধীন বন্দীর দেহ। যদিও তার বিরুদ্ধে প্রটেকশন অফ চিল্ড্রেন ফর্ম সেক্সচুয়াল ওফেন্সের মামলা চলছে।এই খবর পাওয়ার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন মৃত বন্দির পরিবারের লোকেরা। কিভাবে সংশোধনাগারে মৃত্যু হল রাজু মন্ডল এর এর প্রতিবাদ এবং জেল সুপারের শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার সকালে মৃত রাজু মন্ডল এর পরিবার এবং কৃষ্ণকালিতলা  নেতাজি কলোনির বাসিন্দারা সংশোধনাগারে সামনে বিক্ষোভ দেখান। মৃতের স্ত্রী এবং স্থানীয় গ্রামবাসীদের অভিযোগ, এত নিরাপত্তা থাকা সত্ত্বেও কিভাবে মৃত্যু হলো রাজু মন্ডল এর। তদন্ত এবং জেল সুপারের গাফিলতির অভিযোগ তুলে তার শাস্তির দাবি তোলা হয়।

  • ঈদের খুশিতে হোমের শিশুদের মাংস ভাত পোলাও খাওয়ালো শহরের চিকিৎসকরা ।

    News Bazar24:    হোমের শিশুদের মাংস ভাত পোলাও খাইয়ে নিজেদের ঈদ পালনে ব্রতি হলেন মালদা শহরের কিছু চিকিৎসক ।বুধবার ঈদের নামাজ পড়ে চিকিৎসকেরা হোমে যায় ।এবং নিজ হাতে শিশুদের মাংস ভাত পোলাও খাওয়ায় । ইংলিশ বাজারে র চন্ডিপুরে নিরাপদ কটেজ হোম ও সুনীতি শিশু গৃহ হোমের প্রায় 60/70 শিশুকে চিকিৎসকরা মাংস ভাত মিষ্টি পোলাও খাওয়ায়। ঈদে মাংস ভাত পোলাও পেয়ে যথেষ্ট খুশি হোম এর শিশুরা । হোমের শিশু কুশ পঙ্কজ মানষ হেমব্রম রাজু শিরবিনাথদের খাওয়ানোর পাশাপাশি শারীরিক অবস্থার খোজখবর নেয় চিকিৎসকরা । এই মহৎ কাজে যে যে চিকিৎসকেরা অংশগ্রহণ করেন তারা হলেন ডা: আজমাল হোসেন , ডা. রফিকুল হাসান , ডা. তহিদুল ইসলাম , ডা. মানওয়ার হোসেন , ও ডা. মোস্তাহিদা খানম , ডা. যুবাইর মুসতাহিদ , সালমান হোসেন , আনওয়ার হোসেন, ও আশরফ আলি। এদিনের মূল উদ্যোক্তা ছিলেন ডা. মুজতাহিদা খানাম।তিনি জানান " প্রতি মাসে হোমের শিশুদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসা পরিষেবা দিতে আমি সেখানে যায়। তাদের দেখে আমার মনে হয়েছিল যে ঈদে তাদের মুখে যদি হাসি ফোটানো জন্য ঈদের দিন এটা করা দরকার । আমরা কয়েকজন চিকিৎসক সারা বছরই এই ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে নানা রকম পরিষেবা দেওয়ার চেষ্টা করি।"

  • বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে মালদা জেলায় স্স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের বিভিন্ন কর্মসূচী

    মালদা, ৫ ই জুনঃ আজ বিশ্ব পরিবেশ দিবস । রাজ্যের অন্যান্য অংশের ন্যায় মালদা জেলাতেও  বিভিন্ন স্স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচী প্রতিপালিত করেন। এই উপলক্ষে সকাল ৭টার সময় রথবাড়ি মোড়ে সাফাই অভিযানে নামে এসএফআই( SFI) ও ডিওয়াইএফআই (DYFI)মালদা জেলা কমিটির সদস্য ও সদস্যারা।  অপরদিকে পশ্চিম বঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চর মালদা জেলা কমিটি  ও  মালদা কলেজের NSS এর কর্মীদের  মালদা কলেজের সুকান্ত ছাত্রাবাস সংলগ্ন এলাকায় পার্থেনিয়ান নির্মূল অভিযান করে। তার কিছু চিত্র এখানে দেওয়া হল।

  • শহরের বক্কা টুলি মসজিদে নামাজ পড়তে উপচে পরা ভিড়

    News Bazar24 :সারা রাজ্যের সাথে. মালদা শহরেও পালিত হল আজ খুশির ঈদ।এদিন সকালে মালদা শহরের বক্কা টুলি মসজিদে নামাজ পড়তে হাজির হন এলাকার কয়েকশো মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। ৮ থেকে ৮০ সকল বয়সের নামাজ পাঠের পর একে অপরের সঙ্গে আলিঙ্গন করেন।এদিন উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা জেলা পরিষদের মেন্টর কৃষ্ণেন্দু নারায়ন চৌধুরী এছাড়াও ছিলেন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার মুসলিম সম্প্রদায়।প্রতিবারের মতো বক্কা টুলি মসজিদে কয়েক বছর ধরে নামাজ পাঠ করেন এলাকার প্রায় কয়েক শত মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।