উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর

  • বিশ্ব বাংলা শারদ সন্মান : জেলার সেরা পূজা হিসাবে হিলির বিপ্লবী সংঘ,

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ১৫ অক্টোবরঃ সোমবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিশ্ব বাংলা শারদ সন্মান ২০১৮ ঘোষণা করা হল। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা শাসকের সভাকক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে জেলা তথ্য ও সাংস্কৃতিক দপ্তরের আধিকারিক শান্তনু চক্রবর্তী জানান, এবারে জেলার সেরা পূজা হিসাবে হিলির বিপ্লবী সংঘ, গঙ্গারামপুরের চিত্তরঞ্জন স্পোর্টিং এ্যান্ড কালচারাল ক্লাব ও বালুরঘাটের অভিযাত্রী ক্লাব এ্যন্ড লাইব্রেরীকে বিবেচিত করা হয়েছে। জেলার সেরা মন্ডপ হিসাবে গঙ্গারামপুরের হাইস্কুলপাড়া সার্বজনীন দুর্গাপূজা, বালুরঘাটের কচিকলা একাডেমী ও বালুরঘাটের সৃজনী সংঘ এ্যান্ড লাইব্রেরী হিসাবে বিবেচিত হয়। সেরা প্রতিমায় প্রথম ত্রিমোহিনীর অমর ফ্রেন্ডস্‌ স্টাফ, দ্বিতীয় বিংশ শতাব্দী ক্লাব বালুরঘাট ও তৃতীয় ইউথ ক্লাব গঙ্গারামপুর। গ্রীন পূজা হিসাবে বালুরঘাটের আর্য সমিতি প্রথম, দ্বিতীয় হিসাবে বিবেচিত হয়েছে বালুরঘাটের দিশারী ক্লাব এ্যন্ড লাইব্রেরী ও তৃতীয় বালুরঘাটের মহামায়া ক্লাব। পূজার পরে এই সব ক্লাবের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে বলে প্রশাসন সুত্রে জানানো হয়েছে।

  • শারদ উৎসব উপলক্ষে দুঃস্থ মহিলাদের পাশে " বন্ধু"

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ১৪ অক্টোবরঃ 'বন্ধু' নামে বালুরঘাটের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে রবিবার এলাকরা দুঃস্থ বয়স্কা মহিলাদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণের পাশাপাশি মধ্যাহ্নকালীন আহার এবং মরণোত্তর দেহদান করা হল। এদিন দুপুরে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট থানার কুড়মাইল এলাকায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। বালুরঘাটের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা 'বন্ধু' র উদ্যোগে ও কামারপাড়ার 'মোরান' নামে অন্য একটি সদস্যার ব্যবস্থাপনায় এদিনের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কামারপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক ডাঃ সাগর বেসরা, সমাজকর্মী তথা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সর্বোচ্চ রক্তদাতা প্রদীপ সাহা , কুড়মাইল ডায়েট কলেজের শিক্ষক রাজু মণ্ডল , চাইল্ডলাইন-‌এর দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সঞ্চালক সূরজ দাশ ও শিক্ষক ও সমাজসেবী তুষারকান্তি দত্ত। কামারপাড়া এলাকার দিলীপ সাহা, অভিজিত সরেন এবং দেবরাজ মোহন্ত নামে তিন যুবক মরণোত্তর দেহদানের অঙ্গীকার করেন । তাদের হাতে মরণোত্তর দেহদানের অঙ্গীকার পত্র তুলে দেন ডাঃ সাগর বেসরা । উপস্থিত এলাকার বয়স্কা মহিলাদের সচেতনতা বাড়াতে সরকারী বিভিন্ন স্কীম নিয়ে আলোচনা করেন চিকিৎসক বেসরা। এছাড়াও স্বাস্থ্য সচেতনতার বিভিন্ন বিষয়ে সচেতন করেন তাদের। আয়োজক সংস্থা 'বন্ধু'র অন্যতম কর্ণধার শিক্ষক অলিন্দ চক্রবর্তী ও 'মোরান' এর কর্ণধার কৌশিক বিশ্বাস জানান, এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত কামারপাড়া এলাকার দুঃস্থ, অসহায় ও বয়স্কা মহিলাদের হাতে এদিন নতুন বস্ত্র তুলে দিতে পেরে তারা ভীষণ খুশি । অনুষ্ঠান শেষে ডাল,ভাজা, সব্জী, ভাত, সয়াবিনের তরকারি, চিকেন, চাটনি সহকারে মধ্যাহ্নকালীন আহারে অংশগ্রহণ করেছিলেন সকলে ।

  • দক্ষিণ দিনাজপুরের তপনে সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর প্রচেস্টায় দেড় লক্ষাধিক টাকার কাফ সিরাপ উদ্ধার

    Newsbazar24, ডেস্ক , ১৩ অক্টোবর : দক্ষিণ দিনাজপুরের তপন থানার অর্জুনপুরে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার কাফ সিরাপ উদ্ধার করল । বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তপন থানার  অর্জুনপুর বর্ডার আউট পোস্টের  চ্যামটাগুড়ি এলাকা থেকে ১১কার্টুন  কাফ সিরাপ উদ্ধার করা হয়। উদ্বার হওয়া কাফ সিরাপের বর্তমান বাজার দর দেড় লক্ষাধিক টাকার বেশী। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তারের কোন খবর পাওয়া যায়নি। সীমান্ত রক্ষী বাহিনী  সূত্রে জানা যায় , গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে সীমান্ত এলাকায় কড়া নজরদারি চালাচ্ছিল । হটাত তাদের নজরে আসে যে কাফ সিরাপ পাচার করা হচ্ছে। সীমান্ত রক্ষী বাহিনী  এগিয়ে গেলে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী -র উপর হামলা চালায় পাচারকারীরা। পালটা জবাব দেয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর  জওয়ানরাও। পালিয়ে যাওয়ার সময়  সময় ১১ কার্টন কাফ সিরাপ ফেলে যায় পাচারকারীরা। পরে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী তপন থানার পুলিসের হাতে ঐ কাফ সিরাপ তুলে দেয়।  তপন থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে ।    

  • বোর্ডের মেয়াদ শেষ, বসছে প্রশাষক, পাচ বছরেও বাড়ি বাড়ি পানীয় জল দিতে পারল না বালুরঘাট পুরসভা

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ১২ অক্টোবরঃ বাম আমলে নেওয়া বাড়ি বাড়ি জল প্রকল্প পাচ বছর সময়সীমাতেও শেষ করতে পারল না তৃণমূল পরিচালিত বালুরঘাট পৌরসভা। অক্টোবর মাসের ২৩ তারিখ বর্তমান পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে হওয়ার আগে শুক্রবার বালুরঘাট পুরসভায় সাংবাদিক সম্মেলন করে পুরসভার চেয়ারম্যান রাজেন শীল আগামী সোমবার থেকে বালুরঘাট বুড়াকালী মন্দিরে জলের সংযোগ দিয়ে বাড়ি বাড়ি পরিশ্রুত পাণীয় জল সরবরাহ প্রকল্প পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হচ্ছে বলে জানান। যদিও গত পাঁচ বছরেও এই প্রকল্পের পরিষেবা শহরের বাড়ি বাড়ি না পৌঁছানোয় হতাশ পুরবাসী। বাম পরিচালিত বালুরঘাট পুরসভার আমলে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পে বালুরঘাট শহরে বাড়ি বাড়ি পরিশ্রুত পাণীয় জল সরবরাহ প্রকল্পের কাজ শুরু করছিল। আত্রেয়ী নদী থেকে জল তুলে তা পরিশ্রুত করে পাইপের মাধ্যমে প্রতিটি বাড়িতে পৌছে দেবার কথা ছিল। ৪২ কোটি টাকার এই প্রকল্পের কাজ বাম তথা আরএসপি পরিচালিত পুরসভার আমলে শুরু হলেও তা শেষ করতে পারেনি। গত ১৩ সালে বালুরঘাট পুরসভা নির্বাচনে সব দলেরই ইস্তেহারে পুরসভার প্রতিটি পরিবারে জল পৌঁছে দেবার ঘোষণা করা হয়েছিল। সেইমতো তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে সেই কাজ শুরু করেছিল। কিন্তু গত বছরেও তা শেষ করতে পারল না। জানা যায়, শুক্রবারেই রাজ্য পুরবিষয়ক দপ্তর থেকে ২৪ অক্টোবর থেকে পুরসভায় প্রশাসক বসানোর নির্দেশ আসে। এরপরেই তড়িঘড়ি সাংবাদিক বৈঠক করে পুরসভার সাফল্যের ক্ষতিয়ান তুলে ধরা হয়। তবে গ্রীন সিটি প্রকল্প ও বাড়ি বাড়ি পরিশ্রুত পাণীয় জল প্রকল্পের কাজ শেষ হল না এই মেয়াদকালে। তবে পৌরাধ্যক্ষ রাজেন শীল জানান, সোমবার বালুরঘাট বুড়াকালী মন্দিরে তা পরীক্ষামূলকভাবে চালু হলেও আগামী মাস থেকেই বাড়ি বাড়ি জল সরবরাহ প্রকল্পের কাজ চালু হয়ে যাবে। বালুরঘাটের আর এস পি নেতা প্রলয় ঘোষ জানান, তৃনমুল বোর্ড যে জল সরবরাহ প্রকল্পের কাজ শেষ করে উঠতে পারবেন না তা বালুরঘাটবাসি আগে থেকেই জানত। এই বোর্ডের সদিচ্ছার অভাব ছিল।

  • হাই ড্রেনের মধ্যে ষাড় পরে যাওয়াকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ১১ অক্টোবরঃ হাই ড্রেনের মধ্যে ষাড় পরে যাওয়াকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল। বৃহস্পতিবার বালুরঘাট শহরের বিশ্বাসপাড়া সংলগ্ন এলাকার ঘটনা। এদিন রাত সাড়ে নয়টা নাগাদ ষাড়টি হাই ড্রেনের মধ্যে পরে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারা ষাড়টিকে ড্রেন থেকে তোলার চেষ্টা করে। পরে না পেরে দমকল বিভাগে খবর দিলে দমকল কর্মীরা প্রায় এক ঘন্টার প্রচেষ্টায় ষাড়টিকে উদ্ধার করে। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলার কুন্তল দাস বলেন, রাত সাড়ে নয়টা নাগাদ ষাড়টি ড্রেনের মধ্যে পরে যায়। প্রায় ডুবন্ত অবস্থায় আমরা ষাড়টিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করি। কিন্তু ষাড়টি খুব বড় হওয়ায় আমরা উদ্ধার করতে পারিনা। পরে দমকলকে খবর দিলে তারাই ষাড়টিকে উদ্ধার করে।

  • পুজোর দিন গুলোতে ভোগান্তি কমাতে আপাতত খুলে দেওয়া হল বালুরঘাট শহরের মঙ্গলপুর ব্রীজ ।

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ১১ অক্টোবরঃ পূজার আগেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট শহরের মঙ্গলপুর ব্রীজ খুলে দেওয়া হল। গত ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে এই ব্রীজ বন্ধ ছিল। ফলে এদিন থেকেই বালুরঘাট বাসস্ট্যান্ড থেকে ফের সমস্ত গাড়ি চলাচল শুরু হল। তবে পূজার আগে তা চালু হলেও পূজার পরে ফের ব্রীজের কাজ শুরু হবে বলে জানা যায়। যদিও বিজেপির তরফে এ কাজে অত্যন্ত নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে কাজ করার অভিযোগ করা হয়। বালুরঘাট শহরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ৫১২ জাতীয় সড়কের উপর মঙ্গলপুর সেতু। বালুরঘাট শহরের উত্তর অংশের সঙ্গে শহরের দক্ষিণ ভাগের যোগাযোগকারী এই সেতু দুর্বল হয়ে পড়ায় কেন্দ্রীয় পূর্ত দপ্তরের তরফ থেকে এই সেতুর সংস্কারের কাজ শুরু করা হয়েছিল। সেতুর দুপাশে সমস্ত যান চলাচল বন্ধ করে দিয়ে সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছিল। ফলে বালুরঘাট থেকে দুরপাল্লার যাত্রীবাহি বাস ও লরি সহ মালদা ও রায়গঞ্জগামী সমস্ত গাড়িগুলি ব্রীজের ওপারের ব্রীজকালী মোড় এলাকা থেকে ছাড়া হচ্ছিল। বালুরঘাট শহরবাসীকে অনেক ঘুরপথে সেখানে যেতে হচ্ছিল। এদিন ফের ব্রীজ চালু হওয়ায় ফের বালুরঘাট পুরবাসস্ট্যান্ড ও সরকারী বাসস্ট্যান্ড থেকে বাসপরিষেবা চালু হল। ফলে বালুরঘাট শহরের যাত্রীদের আপাততঃ দুর্ভোগ কমল। পূর্ত দপ্তরের জাতীয় সড়ক বিভাগের নির্বাহী বাস্তুকার জগন্নাথ সামন্ত জানান, প্রশাসনের তরফে ১০ অক্টোবর সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিল। সেইমতো অস্থায়ীভাগে কাজ করা হয়েছে। সেকারণে ভারী যানবাহন যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা থাকছেই। পূজার পরে ফের কাজ করার পরেই ভারী যান চলাচল শুরু হবে এই ব্রীজের উপর দিয়ে। বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার জানান, অত্যন্ত নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে কাজ করা হয়েছে। তাছাড়াও নির্ধারিত সিডিউলের যে পরিমান ইঁট,বালি, সিমেন্ট ও রড ব্যবহারের কথা ছিল তা মানা হয় নি। তবে দ্বিতীয় পর্যায়ে কাজ শুরু হলে তার উপর কড়া নজরদারী চালানো হবে বলে বিজেপির জেলা সভাপতি জানান।

  • দুটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ এ গঙ্গারাম পুরে মৃত ১

    অজয় সরকার, গঙ্গারামপুর, ১০ অক্টোবরঃ দুটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হল ট্রাক ড্রাইভারের। বুধবার দুপুরে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গংগারামপুর থানার ঠ্যাংগাপাড়া এলাকায় ৫১২ জাতীয় সড়কে ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ সূত্রে জানা যায় মৃত ওই ট্রাক ড্রাইভারের নাম মহম্মদ সইদ(৬৫)। ঘটনায় ট্রাকের খালাসি মহম্মদ শ্যাম(৫৫) গুরুতর জখম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুইজনের বাড়ি মালদহ জেলায়। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এদিন ঠ্যাংগাপাড়া এলাকায় একটি ট্রাকের সামনের চাকা ফেটে গিয়ে উলটো দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাকের সংগে ধাক্কা মারে। মুখোমুখি সংঘর্ষে একটি ট্রাকের সামনের অংশ একেবারে ভাংগে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারা ঘটনাস্থলে পৌছে ড্রাইভার ও খালাসিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানেই ড্রাইভারকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, খালাসির অবস্থায় সংকটজনক। গংগারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক বিপুল ব্যানার্জী জানান, দুটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে অনুমান ট্রাকের সামনের চাকা ফেটে যাওয়ায় ট্রাকটি অন্য ট্রাককে ধাক্কা মারে।

  • দুর্গাপূজায় জেলা প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতায় বালুরঘাটে আরএসপি ও বিজেপি।

    অজয় সরকার/ সরোজ কুন্ডু, বালুরঘাট, ১০ অক্টোবরঃ দুর্গাপূজায় মোটরবাইক সহ চারচাকা চলাচলে জেলা প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করল আরএসপি ও বিজেপি। বুধবার বিজেপি'র পক্ষ থেকে জেলা শাসকের কাছে ডেপুটেশন দেওয়া হয়। পাশাপাশি আরএসপি থেকে একটি প্রতিনিধিদল এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে জেলা শাসকের সংগে দেখা করেন। বিজেপি ও আরএসপি উভয় দলের পক্ষ থেকেই দাবি জানানো হয় যে, মোটরবাইক সহ চারচাকা বিকেল ৫ টা থেকে রাত্রি ১ টা অবধি বন্ধ রাখা যেতে পারে। কিন্তু তার পর তা চলাচলের অনুমতি দেওয়া হোক। না হলে প্রবল অসুবিধায় পরবেন বাইক ও চারচাকা আরোহীরা। জেলার বাইরে থেকে যারা গাড়ি নিয়ে পুজো পরিক্রমা করতে আসে তাদের মধ্যরাতের পর শহরে প্রবেশ করবার অনুমতি দেওয়া হোক। পুজোর সময় ওষুধের দোকান যেন বন্ধ না থাকে ও সাধারণ মানুষ যেন ভোগান্তির শিকার না হয় তা দেখতে হবে। যান চলাচলকে স্বাভাবিক রাখতে হবে। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা আরএসপি সম্পাদক বিশ্বনাথ চৌধুরী জানান, পূজোর দিনগুলিতে আইন শৃংখলা সুষ্ঠ রাখতে হবে। মানুষ যেন অসুবিধার সম্মুখিন না হতে হয় প্রসাসনকে সেদিকে নজরদিতে হবে। বিজেপি'র জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার জানান, পূজোর দিনগুলিতে বাইক চলাচল বন্ধ করা যাবে না। বাইক চলাচলের অনুমতি দিতে হবে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষ প্রতিমা দেখতে গিয়ে কোন অসুবিধার সম্মুখিন না হয়। শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পানীয় জলের ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ জানিয়েছি।

  • মোবাইলের চার্জার চুরির অপবাদে পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রকে মারধোর বালুর ঘটে

    অজয় সরকার, বালুরঘাট, ০৯ অক্টোবর: মোবাইলের চার্জার চুরির অপবাদে পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় স্কুল ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাল কয়েক’শ আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ। মঙ্গলবার বালুরঘাট খাদিমপুর হাই স্কুলের সামনে এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। খবর পেয়ে বালুরঘাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী এলাকায় পৌঁছায়। জানা যায়, গত শুক্রবার বিকেলে স্কুল শেষের পর বহিরাগত কিছু যুবক খাদিমপুর স্কুলে ঢুকে ফুটবল খেলছিল। সেসময় মোবাইলের চার্জার চুরির অপবাদে স্কুলের হোস্টেলের এক ছাত্র সুদীপ্ত হাসদাকে মারধর ওই যুবকরা। ঘটনায় মাথায় আঘাত লাগে সুদীপ্ত হাঁসদার। এরপর স্কুল বন্ধ হয়ে যায়। মঙ্গলবার স্কুল খুলতেই ওই ছাত্রের পরিবারের লোকজন সহ তার সম্প্রদায়ের বহু লোক স্কুলের সামনে জড়ো হয় ও বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ওই ছাত্র। বিক্ষোভকারীদের দাবি, এই ঘটনায় যুক্ত ব্যাক্তিদের গ্রেফতার ও শাস্তি দিতে হবে। দক্ষিণ দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ আধিকারিক দেবাশিষ নন্দি জানান, ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার সন্দেহে ছয় জনকে আটোক করা হয়েছে। এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • লন্ডনের একটি দুর্গের আদলে তৈরী হচ্ছে সীমান্ত শহর হিলির বিপ্লবী সংঘের দুর্গা মণ্ডপ তার

    বালুরঘাট,৮ অক্টোবর— এবারে পূজায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের গ্রীন সিটি প্রকল্পকে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সীমান্ত শহর হিলির বিপ্লবী সংঘের। উত্তরবঙ্গের বিগ বাজেটের পূজাগুলির মধ্যে অন্যতম এই পূজা মন্ডপটি প্রতিবছর শুধু দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা‌ই নয়, পার্শ্ববর্তী মালদা, উত্তর দিনাজপুর এমনকি শিলিগুড়ি থেকে বহু মানুষের ঢল নামে। এবারেও তার ব্যতিক্রম হবে না বলে আশাবাদি ক্লাব কর্তৃপক্ষ। এবারে বিপ্লবী সংঘের পূজা ৫০ বছরে পা দিল। লন্ডনের একটি দুর্গের আদলে তৈরী হচ্ছে সুবিশাল মন্ডপ। বালুরঘাটের শিল্পী রাজনারায়ন সাহা চৌধুরি গত কয়েক মাস ধরে দিনরাত পরিশ্রম করে মন্ডপ গড়ে চলেছেন। প্রায় ৭০ ফুট উঁচু ও ১০৬ ফুট চওড়া এই মন্ডপে গেলে মিলবে আস্ত একটি রাজবাড়ির ছোঁয়া। মন্ডপের সামনে একটি আস্ত বাগান তৈরী করা হচ্ছে। সেখানে কৃত্রিম সবুজ ঘাসের আচ্ছাদন যেমন থাকবে, তেমনই থাকবে সোনালি ও রুপালি রং এর গাছের পাতা থেকে হরেক কারুকার্য। এই বাগানে থাকবে জ্যান্ত টিয়া, ময়না, কাঠবিড়ালি, ঘুঘু , বাবুই ও প্রজাপতি। এবারের পূজা কমিটির সম্পাদক হিলির বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তথা বঙ্গরত্ন পুরস্কারপ্রাপ্ত সমাজসেবী অমূল্যরতন বিশ্বাস জানান, মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের গ্রীন সিটি প্রকল্পকে এবারের এই মন্ডপসজ্জার মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে। মন্ডপের ভেতরে থাকছে রাজবাড়ির পুরানো আমলের নানা নিদর্শন। থাকছে রাজবাড়ির পুরানো লন্ঠন। মন্ডপের গায়ে থাকছে হরেক রকমের ও নানা রং-‌এর জরির সুক্ষ্ম কারুকার্য। এজন্য গত ৩ মাস ধরে ৪০-‌৫০ জন মহিলারা পুঁথি, কলকা, ফুল নিয়ে এসব কাজ করে চলেছেন। অপটিক্যাল ফাইবারকে কাজে লাগিয়ে হাতি, হরিণ ও সিংহ তৈরী করা হচ্ছে। এছাড়াও ব্রিটিশ আমলে রাজপ্রাসাদে থাকা গিটার, বেহালা, হারমোনিয়াম, তবলা সহ হরেক রকমের বাদ্যযন্ত্রের দেখা মিলবে এই প্রাসাদে। মন্ডপের ভেতরের আলোক সজ্জার দায়িত্বে রয়েছেন ত্রিমোহিনীর আলোকশিল্পী তিলক সাহা। গ্রিন সিটির থিমকে ফুটিয়ে তোলা হবে এই মন্ডপে। লন্ডন শহরে যে ধরণের আলোর ব্যবস্থা রয়েছে, অবিকল সেই ধরণের আলোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে এখানেও। তবে মন্ডপের বাইরে চন্দননগরের আলোর কারসাজি দেখা মিলবে এবারেও। ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী বর্ষে চন্দননগরের পাশাপাশি নদীয়া থেকে এসেছেন আলোকশিল্পীরা। মন্ডপ ও প্রতিমার সঙ্গে সাজুয্য রেখে নবদ্বীপের মৃৎশিল্পী নাড়ুগোপাল পাল মূর্তি গড়ে চলেছেন। পূজা কমিটির সম্পাদক অমূল্য বাবু জানান, প্রতিবারের মতো এবারেও দশমীর পরদিন হিলির যমুনা নদীর পাড়ে আতস বাজির প্রদর্শন অনুষ্ঠিত হবে। এবারে তাকে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পূজা উদ্যোক্তাদের দাবি, এবারের এই পুজা কেবল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলারই নয়, উত্তরবঙ্গের অন্যতম সেরা পূজা হিসাবে বিবেচিত হবে। এজন্য সমস্ত রকমের পরিকল্পনা নিয়ে দিনরাত এক করে কাজ করে চলেছেন সমস্ত শিল্পী ও পূজা উদ্যোক্তারা।