Newsbazar24.com / রাজ্য

  • মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারির পরিপ্রেক্ষিতে সরকারী ডাক্তাররা গন ইস্তফার পথে।

    14-Jun-19 01:12 am


    ডেস্ক, ১৩ই জুনঃ  এনআরএস-র ঘটনায়  ইস্তফা দিলেন নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ শৈবাল মুখোপাধ্যায় সুপার তথা সহ-অধ্যক্ষ সৌরভ চট্টোপাধ্যায় রোগী মৃত্যুকে ঘিরে জুনিয়র ডাক্তারদের মারধরের জেরে এনআরএস-সহ রাজ্যের সব সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে ডাক্তারদের কর্ম বিরতিতে অচলাবস্থা চলছে এনআরএসে বিগত গত দিন ধরে বন্ধ কার্যত সব পরিষেবা প্রাথমিকভাবে আন্দোলনরত ডাক্তারদের অনুরোধ করলেও বৃহস্পতিবার চরম হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী এই পরিস্থিতিতে কার্যত ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগ করলেন নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ শৈবাল মুখোপাধ্যায় সুপার সৌরভ চট্টোপাধ্যায়

    পদত্যাগপত্রে এনআরএসের অধ্যক্ষ সুপার লিখেছেন, “গত ১০ জুন ধরে হাসপাতালে চলা অচলাবস্থা সামলাতে ব্যর্থ হয়েছি এই পরিস্থিতিতে পদত্যাগ করছি দয়া করে আমাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হোক

    অধ্যক্ষের ইস্তফা প্রসঙ্গে  এল জুনিয়ার  চিকিৎসক অনির্বাণ নাথ বলেন, “উনি দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ হলেন। উনি চাইলে আমাদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সেতুবন্ধনের কাজটা করতে পারতেন। কিন্তু উনি সরে দাঁড়ালেন

    উল্লেখ্য, এনআরএসের ঘটনায় জুনিয়র ডাক্তারদের বিক্ষোভে বৃহস্পতিবার চরম হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তারদের ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী চিকিৎসা পরিষেবা শুরু করার নির্দেশ দেন।  তা না হলে এসমা আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন মমতা। এমনকী নির্দেশ না মানলে  হস্টেল খালি করারও কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী।  মমতার হুঁশিয়ারির প্রতিবাদে এদিন সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক ইস্তফা দিয়েছেন। শেষমেশ এনআরএসের অধ্যক্ষ সুপারের ইস্তফায় পরিস্থিতি আরও জটিল হল বলেই মনে করা হচ্ছে

    এদিকে, মুখ্যমন্ত্রীর কড়া বার্তার পরই এদিন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সঙ্গে দেখা করেন জুনিয়র ডাক্তারদের এক দল। রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠকের পর তাঁরা জানান, “এই অত্যাচার সহ্য করে কাজ করতে করতে আমাদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে, দেওয়ালই আর নেই। ভেবেছিলাম রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান পাশে দাঁড়িয়ে সহমর্মিতা জানাবেন, কিন্তু তিনি এমন কথা বললেন, যা শুনে মনে হল আমরাই দোষী। আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে

    এদিন বিকালে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে চিকিৎসা পরিষেবা চালু করার আর্জি জানিয়ে সিনিয়র ডাক্তারদের খোলা চিঠি দেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি, ফেসবুকেও একই আবেদন রাখেন মমতা। অন্যদিকে, এনআরএসের পাশে দাঁড়িয়ে শুক্রবার কর্মবিরতির ডাক দিয়েছে এইমস। কালো ব্যাজ পড়ে প্রতিবাদ জানাবে আইএমএ- যেই আইএমএর প্রধান হচ্ছেন  তৃনমূলের সাংসদ ডাঃ শান্তনু সেন।

    (উপরের ছবিতে অবস্থানরত এন আর এসের ডাক্তার রা এবং নীচের ছবিতে এনআরএসের অধ্যক্ষ,)

     

    Read : 0
    Edit

Related Posts

ধোঁয়া মুক্ত করার জন্য মানিকচকের নারায়নপুর চরের বাসিন্দাদের দেওয়া হল বিনামূল্যে এলপিজি গ্যসের কানেকশান।
শুরুহল মালদার মহা ঐতিয্যবাহী রামকেলি উৎসব ২০১৯
মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় রাজি জুনিয়র চিকিৎসকরা, তবে একটি শর্তে
ভস্মীভূত গৃহস্থ বাড়ি, দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি নিয়ে অসহায় দম্পতি প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে
মুখ্যমন্ত্রী জনগণকে বিভ্রান্ত করে আমাদের বিরুদ্বে ব্যবহার করতে চাইছেন অভিযোগ জুনিয়র চিকিৎসকদের
মুখ্যমন্ত্রীকে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার পরামর্শ রাজ্যপালের।
মানিকচক থানা পুলিশের সাফল্য,মানিকচক উচ্চ বিদ্যালয়ের চুরি যাওয়া কম্পিউটার সামগ্রী উদ্ধার
রাজ্যজুড়ে পালিত হলো বিশ্ব রক্ত দাতা দিবস
বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উদযাপন মালদা শহরে